Main Menu

কোটিপতিদের গ্রাম

চীনে হুক্সাই গ্রামের সবাই কোটিপতি রহস্যময় একটি গ্রাম। যেখানে একসময় মানুষ খুব গরিব ছিল। সাধারণ কৃষিকাজ ছিল যাদের পেশা; সেই তারাই এখন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী গ্রামের বাসিন্দা। প্রত্যেকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে আছে ২৫ লাখ ডলার বা বাংলাদেশি টাকায় ২১ কোটি ২৪ লাখ টাকা প্রায়। গণমাধ্যমে চীনের হুয়াক্সি নামের গ্রামটি সবচেয়ে ধনী মানুষের গ্রাম হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছে। এটিকে কমিউনিস্ট ইউটোপিয়া বা ‘সাম্যবাদের কল্পরাজ্য’ বলা হচ্ছে।

বিজনেস ইনসাইডারের প্রতিবেদনে বলা হয়, হুয়াক্সির সবাই ধনী হলেও সেখানকার সবকিছুই রহস্যময়। গণমাধ্যমের সামনে কারও কথা বলার অনুমতি নেই। একসময়ের খুব সাধারণ কৃষকসমাজ ইস্পাত ও জাহাজের বাজারে বহু কোটি টাকার সম্পদের রাজ্যে রূপান্তরিত হয়েছে। এখানে দুই হাজার নিবন্ধিত অধিবাসী বাস করেন। তাঁদের স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ সবকিছু বিনা মূল্যেই দেওয়া হয়। এখানকার প্রত্যেকেই সাত দিনই কাজ করেন। তাঁদের ছুটি বলে কিছু নেই। গ্রামটি প্রতিষ্ঠা করেন হুয়াক্সি ভিলেজ কমিউনিস্ট পার্টি কমিটির সাবেক সেক্রেটারি উ রেনবাও। জিয়াংশু প্রদেশে অবস্থিত হুয়াক্সি গ্রামের প্রতিটি বাড়িতে পরিবারের সদস্যসংখ্যা অনুযায়ী কম করেও দুটি গাড়ি রয়েছে। শুধু তা-ই নয়, ২ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের ব্যাংক-ব্যালেন্স রয়েছে। সঙ্গে রয়েছে বিনা মূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা ও শিক্ষা।

২০১১ সালে গ্রামটির ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ৩২৮ মিটার উঁচু বড় ভবন তৈরি করা হয়। গ্রামের সব বাসিন্দা একসঙ্গে সমবেত হওয়া ও খাওয়ার জন্য বিশাল জায়গা রয়েছে। গ্রামে জুয়া খেলা ও মাদকসেবন পুরোপুরি নিষিদ্ধ। গ্রামটির বড় আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে—গ্রাম ছাড়লেই সব শেষ! কেউ সঙ্গে কিছু নিতে পারবে না। গ্রামের সম্পদ গ্রামেই থাকবে। ধনী কিন্তু রহস্যময় হয়ে রয়েছে হুয়াক্সি।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার।

http://www.prothom-alo.com/international/article/1376161

Comments

comments






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Facebook

Likebox Slider Pro for WordPress