Main Menu

আয় আল্লাহ ! সহায় সম্পদ যা ছিল সব পুড়িয়ে দিলে…?

জাহাজডুবিতে এক লোক সবকিছু হারিয়ে এক দ্বীপে আশ্রয় নিল। জনমানবশূণ্য-সুনসান দ্বীপ। প্রথম কিছুদিন লোকটা এমনি এমনি ঘুরেফিরে কাটালো। এটা সেটা ফল-মূল খেয়ে। সারাদিন সাগর তীরে এসে বসে থাকল কোনও জাহাজ আসে কি-না। এই আশায়। আল্লাহর কাছে অনেক দোয়া করল। কিন্তু কোনও জাহাজ এদিকে এলো না।
এভাবে দীর্ঘ দিন কেটে গেলে। লোকটা এতদিনে কিছুটা গুছিয়ে বসেছে। ছোটখাট একটা কুটিরও বানিয়েছে। কুটিরের চারপাশে কিছু ক্ষেতিশস্যও করেছে।
একদিন লোকটা বনে শিকারে গেল। শিকার থেকে এসে দেখে চুলার আগুনে বাতাসের ঝাপটা লেগে ঘরের চালে আগুন ধরেছে। এতদিনে যা কিছু সঞ্চয় করেছে তা পুড়ে ছাঁই হয়ে গেল।
লোকটা হতাশায় মুষড়ে পড়ল। চিৎকার করে আকাশের দিকে তাকিয়ে বলল,
ইয়া আল্লাহ, এত দুয়া করলাম। একটা জাহাজ পাঠাতে। তা না করে সহায় সম্পদ যা ছিল সব পুড়িয়ে দিলে?
হাঁটুতে মাথা গুঁজে কাঁদতে লাগল। কাঁদতে কাঁদতে ক্লান্ত হয়ে লোকটা একসময় দেখল, একটা জাহাজ আস্তে আস্তে তীরের দিকে আসছে। জাহাজ এসে লোকটাকে উদ্ধার করল। জাহাজে উঠে লোকটা ক্যাপ্টেনকে জিজ্ঞেস করল, আপনারা কেনো এ দ্বীপে এলেন?
ক্যাপ্টেন বলল, আমরা অনেক দূর দিয়ে যাচ্ছিলাম। এমন সময় একজন বলল, দূরে ধোঁয়া দেখা যাচ্ছে। মনে হয় ওখানে কোনো দ্বীপে আটকে পড়া মানুষ আছে। এরপর আমরা জাহাজ নিয়ে ছুটে এলাম।

Comments

comments






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Facebook

Likebox Slider Pro for WordPress